Home বিনোদন বিশ্বকাপে শান্ত-সাকিবদের কাছে যা চান পাপন

বিশ্বকাপে শান্ত-সাকিবদের কাছে যা চান পাপন

3
0











টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে গতকাল (বুধবার) মধ্যরাতে আমেরিকার উদ্দেশে উড়াল দিয়েছে বাংলাদেশ দল। দেশ ছাড়ার দিন দুপুরে মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ফটোসেশন সারেন ক্রিকেটাররা। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও। অফিশিয়াল ফটোসেশনের পর তিনি গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন। সেখানে জানিয়েছেন বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের কাছে চাওয়া–পাওয়ার কথা।

পাপন বলেন, ‘আসলে বার্তা তেমন কিছু দিইনি। বেসিক যা দেওয়া (বলা) হয়েছে সাহস করে খেলতে হবে। টি-টোয়েন্টি এমন একটা ফরম্যাট এখানে ফর্মের কথা চিন্তা করে ভয় যদি একবার মাথায় ঢুকে যায়, এভাবে খেলার সুযোগ নেই। তার ওপর এটা হচ্ছে বিশ্বকাপ, সর্বোচ্চ জায়গা (টুর্নামেন্ট)। আমি বলেছি তারা যেন খুব চাপ না নেয়। মুক্তভাবে যেন তাদের খেলাটা খেলে। যেকোনো খেলাতেই দেখবেন কেউ না কেউ খুব ভালো খেলছে। সবাই যেদিন একসঙ্গে ভালো খেলতে পারবে, সেদিন যেকোনো দলকে হারাতে পারি এটুকু বিশ্বাসটা তাদের আছে, এটা আমার নিজেরও আছে। আমি মনে করি আমাদের সে সামর্থ্য আছে। এখন সবাই খেলতে পারলেই হয়।’

টাইগারদের কাছে প্রত্যাশার কথা জানিয়ে পাপন বলেন, ‘প্রত্যাশা কম হওয়ার কিছু নাই। আমি বলেছি ওরা যেন ভালো খেলে, আমি হার-জিত নিয়ে মাথা ঘামাই না, দেশের মানুষও মাথা ঘামায় না। ওরা যদি ভালো ক্রিকেট খেলে তাহলে সবাই খুশি। গত ওয়ানডে বিশ্বকাপ ছাড়া প্রত্যেকটা বিশ্বকাপই আমরা মোটামুটি ভালো খেলেছি। গত বিশ্বকাপে আমরা আসলেই খুব খারাপ খেলেছি। ভালো খেললে ওরা জিতবে এটুকু আস্থা আছে। তবে নিশ্চিত করে কিছু বলা যায় না, টি-টোয়েন্টিতে এটা বলা খুব কঠিন।’

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে থাকা ক্রিকেটারদের আনুষ্ঠানিক ফটোসেশন

তানজিদ তামিম ও তাওহীদ হৃদয়দের মতো তরুণদের ভালো করার সামর্থ্য আছে বলেও স্মরণ করিয়ে দেন বিসিবি সভাপতি, ‘আমাদের বেশ কিছু নতুন প্লেয়ার আছে, যারা অনেক সামর্থ্যবান। তানজিদ তামিম, তাওহীদ হৃদয়, অনিক (জাকের আলী), রিশাদ (হোসেন), তানভীর (ইসলাম) এদের সামর্থ্য আছে। তারা ভালো না খেললে এই অবস্থানে আসতে পারত না। এখন ওখানে গিয়ে ভালো খেলতে পারবে কি না এটা হচ্ছে কথা। দিস ইজ নম্বর ওয়ান। নম্বর টু আমাদের এখানে সাকিব (আল হাসান) এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের মত একেবারে অভিজ্ঞ প্লেয়ার আছে। এখন প্রতিদিন ওরা পারবে কি না সেটাও জানি না, যদি পারে যেকোনো দলকেই হারাতে পারবে।’


‘এর বাইরে সৌম্য সরকার ও লিটন দাস আছে। লিটনকে এক বছর আগেও সবাই এক বাক্যে লিখত বেস্ট ওপেনার। এখন সে ফর্মে নাই। আমরা শুধু আশা করতে পারি লিটন তার ফর্মে ফিরে আসুক, (নাজমুল হোসেন) শান্ত তার ফর্মে ফিরে আসুক। সৌম্য যদি খেলে ওর মধ্যেও অনেক সামর্থ্য আছে। ওই দিনটা যেন ভালো খেলতে পারে এই তো দোয়া করতে পারি’, আরও যোগ করেন পাপন।

উল্লেখ্য, ২ জুন বিশ্বকাপ আসর শুরু হলেও, বাংলাদেশের অভিযান শুরু হবে ৭ জুন থেকে। যুক্তরাষ্ট্রের ডালাসে শান্তর দল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করবে। ১০ জুন বাংলাদেশ লড়বে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। পরবর্তীতে ১৩ জুন নেদারল্যান্ডস এবং ১৭ জুন নেপালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে গ্রুপপর্ব শেষ করবে বাংলাদেশ।

এসএইচ/এএইচএস