Home বিনোদন বাংলাদেশ দলের ‘ছবি’ কি পাওয়া গেল?

বাংলাদেশ দলের ‘ছবি’ কি পাওয়া গেল?

10
0

নতুন আরেকটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হতে এক মাসের কিছুটা সময় বেশি বাকি। তবে এরমধ্যেই স্কোয়াড তৈরির কাজটা অনেকটা এগিয়ে নিতে হচ্ছে দলগুলোকে। ১ মে আইসিসিতে স্কোয়াড জমা দেওয়ার শেষ সময়। যদিও এটা ¯্রফে নামেই শেষ সময়। মূলত ২৫ মে পর্যন্ত কোন কারণ ছাড়াই পুরো স্কোয়াড বদলে ফেলা যাবে। অর্থাৎ আরও প্রায় এক মাস সময় নানান দিক বিবেচনার জন্য পাওয়া যাচ্ছে। অবশ্য দু’একটি পজিশন ছাড়া অদল বদলের তেমন কিছু থকার কথা নয়।
গতপরশু জিম্বাবুয়ে সিরিজের প্রস্তুতি ক্যাম্পের জন্য ১৭ জন ক্রিকেটারের নাম ঘোষণা করে বিসিবি। আইপিএলে থাকায় মুস্তাফিজুর রহমান ও যুক্তরাষ্ট্রে থাকায় সাকিব আল হাসান এই তালিকায় নেই। জিম্বাবুয়ে সিরিজে সব ম্যাচ না হলেও দুজন কিছু ম্যাচ খেলবেন। বিশ্বকাপে তাদের থাকা নিয়েও কোন সংশয় নেই। এই দুজন ছাড়া ১৭ জন থেকে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত স্কোয়াডের জন্য বেছে নিতে হবে আরও ১৩ জনকে। চোট বা নাটকীয় কিছু না ঘটলে এই ১৭ জনের বাইরের কারো আসার সুযোগ আসলে নেই। কোন অফ স্পিনারের চোট ছাড়া যেমন সুযোগ পাবেন না মেহেদী হাসান মিরাজ। প্রধান নির্বাচক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু তা নিশ্চিতই করে দিয়েছেন। এই ১৭ জনের বাইরে তেমন পারফর্ম করা কেউ নেইও যারা বিবেচনায় আসতে পারেন।
১৭ জনের মধ্যে অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত, তাওহীদ হৃদয়, শরিফুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, লিটন দাস, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, শেখ মেহেদী হাসান ও রিশাদ হোসেনকে নিয়েও আসলে সংশয়ের জায়গা নেই। বাকি রইলো পাঁচটি জায়গা। মিডল অর্ডারের বিকল্প হিসেবে শ্রীলঙ্কা সিরিজে আলো ছড়ানো জাকের আলি অনিক এগিয়ে থাকবেন। জিম্বাবুয়ে সিরিজে খুব খারাপ না করলে বিশ্বকাপে যাচ্ছেন তিনিও। বাকি চারটি স্পটে একজন ওপেনার, টপ অর্ডার ব্যাকআপ ব্যাটার, বাঁহাতি স্পিনার ও একজন পেসার জায়গা আছে। চোট থেকে ফেরার লড়াইয়ে থাকা সৌম্য সরকার ওপেনার হিসেবে বিবেচনায় থাকবেন এগিয়ে। মিডিয়াম পেস বল করার সামর্থ্যেও তিনি সুবিধা পাবেন দলে থাকার। ব্যাকআপ টপ অর্ডার ব্যাটার হিসেবে তানজিদ হাসান তামিম পারভেজ হোসেন ইমন থেকে বেশ এগিয়ে থাকবেন।
মুস্তাফিজ, শরিফুল, তাসকিনের পাশাপাশি চতুর্থ পেসার হিসেবে লড়াইটা মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ও তানজিম হাসান সাকিবের। এই দুজনই বোলিংয়ের পাশাপাশি ব্যাট করতে জানেন। গত বিপিএলে দারুণ বল করে অবশ্য টি-টোয়েন্টিতে দাবি জোরালো করেছেন সাইফুদ্দিনই। ডেথ ওভার স্পেশালিষ্ট হিসেবে তার দলে থাকার সম্ভাবনা প্রবল।
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্রের উইকেটগুলো এবার মন্থর হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বাংলাদেশ তাই স্পিন আক্রমণ শক্তিশালী করে যেতে পারে। সাকিব ছাড়াও বাঁহাতি আরেকজন স্পিনারের প্রয়োজনীয়তা তাই আছে। এই জায়গায় তানভির ইসলামের সঙ্গে লড়াইটা হাসান মুরাদের। জিম্বাবুয়ে সিরিজে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে দুজনকেই বাজিয়ে দেখা হতে পারে। যিনি ভালো করবেন তিনিই পাবেন নিউইয়র্কের টিকেট।
যেমন হতে পারে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াড
নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস, তানজিদ হাসান তামিম, সৌম্য সরকার, তাওহীদ হৃদয়, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, জাকের আলী অনিক, শেখ মেহেদী হাসান, রিশাদ হোসেন, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, হাসান মুরাদ/তানভির ইসলাম।