বিডি প্রাইম ডেইলি
বাংলাদেশ

লামিয়া হত্যাকাণ্ড: মা ৩ দিনের রিমান্ডে


ফেনীর পরশুরামে হাত-পা ও মুখ বেঁধে শিশু উম্মে সালমা লামিয়াকে (৭) হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া মা আয়েশা আক্তারের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) পুলিশ সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন করলে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও পরশুরাম আমলি আদালতের বিচারক ফাতেমা তুজ জোহরা মুনা এ আদেশ দেন।

আরও পড়ুন: জড়িত থাকার কথা স্বীকার করলেন মা আয়েশা

পরশুরাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহাদাৎ হোসেন বলেন, হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে লামিয়ার মা ও সৎ মাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে নূর নবীর প্রথম স্ত্রী ও নিহত লামিয়ার মা আয়েশা আক্তার হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। পরে তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। হত্যাকাণ্ডের মূল রহস্য উদঘাটনে আয়েশা আক্তারকে সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হয়। বিচারক তার তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। লামিয়াকে হত্যায় জড়িত দুই যুবককে এখনো শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। 

আরও পড়ুন: আমাকে ফাঁসাতেই হত্যার পরিকল্পনা, দাবি বাবার

পুলিশ জানায়, গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাতে নিহত শিশু লামিয়ার বাবা মো. নূর নবী বাদী হয়ে নাম না জানা ব্যক্তিদের আসামি করে পরশুরাম থানায় মামলা করেন। ওইদিন রাতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের মা আয়েশা আক্তার ও সৎ মা রেহানা আক্তারকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) আয়েশাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে সৎ মা রেহানাকে বাদীর জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: হাত-পা ও মুখ বাঁধা শিশুর লাশ উদ্ধার, বাবা ও সৎ মা আটক

গত ৬ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে হেলমেট পরা দুই যুবক পরশুরাম পৌরসভার পশ্চিম বাঁশপদুয়া এলাকার এয়ার আহাম্মদের ভাড়া বাসায় এসে নিজেদের পল্লী বিদ্যুতের লোক দাবি করে দরজা খুলতে বলে। শিশুরা দরজা খুলে দিলে তারা ঘরের ভেতরে ঢুকে লামিয়াকে (৭) স্কচটেপ দিয়ে হাত-পা ও মুখ বেঁধে হত্যা করে। এ সময় বড় বোন ফাতেমা আক্তার নিহা (১২) পালিয়ে পাশের একটি বাড়িতে আশ্রয় নেয়।





Source link

Related posts

ব্র্যাক ব্যাংকের নতুন চেয়ারম্যান মেহেরিয়ার এম হাসান

ইমতিয়াজ আলি

সাতক্ষীরায় ডেঙ্গুতে আরও একজনের মৃত্যু

ইমতিয়াজ আলি

ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ক্রেডিট রেটিং নির্ণয়

ইমতিয়াজ আলি