Home বাংলাদেশ বৈশাখের সাংস্কৃতিক আয়োজনে ‘আইটেম গান’

বৈশাখের সাংস্কৃতিক আয়োজনে ‘আইটেম গান’

2
0


পহেলা বৈশাখের সাংস্কৃতিক আয়োজনে ‘আইটেম গান’ বাজানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (১৪ এপ্রিল) সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে পহেলা বৈশাখ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত মঙ্গল শোভাযাত্রা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে।

পবিত্র রমজান মাস ও পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে এমন অশ্লীল গানে নাচানাচি নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইছে সর্বত্র। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিও। সেখানে গানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নাচতে দেখা গেছে দুই শিশুকে।

ভিডিওতে দেখা যায় ‘আইনা বাবু’ শিরোনামের গানের সঙ্গে দুই শিশুর নাচের সময় উপস্থিত ছিলেন নাচোল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাইমেনা শারমিন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিথিলা দাস, নাচোল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিন্টু রহমান প্রমুখ।

সেই ভিডিওতে ‘ইউএনও গোসাইরহাট’ নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে লেখা হয়েছে, ‘খুবই বাজে গান। গানের কথা খুবই অশ্লীল। আরও অশ্লীল হলো এই গানে বাচ্চাদের নাচানো, যাদের এই ধরণের চটি গানের কথার মর্মার্থ বুঝতেই পারার কথা না।’

সৈয়দ সামিইসার আহমেদ নামের আরেকজন লিখেছেন, ‘এই রকম অশ্লীল গানে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের দিয়ে নাচানো ঠিক হয়নি। এমনকি বর্ষবরণে এমন অশ্লীল গান বাঙ্গালির ঐতিহ্য নষ্ট করেছে।’

রাসেল আলী নামের একজন লিখেছেন, ‘পবিত্র মাহে রমজান সওয়াবের মাস, আর এই মাসে এই দিনে, গান-বাজনা, নাচ করাটা উচিত হয়নি।’

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘বাঙালিদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি দিন পহেলা বৈশাখ। এই দিনে দেশের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের সামনে তুলে ধরা হয়। আর এমন দিনে প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সামনে শিক্ষার্থীদের আইটেম গানের সঙ্গে নৃত্য কখনো আমাদের সংস্কৃতির সঙ্গে যায় না। এসব অপসংস্কৃতির কারণে বিভিন্ন সামাজিক অবক্ষয়ের মধ্যে পড়তে হচ্ছে।’

এ বিষয়ে নাচোল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাইমেনা শারমিন বলেন, ‘উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে নাচোলে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে নববর্ষ উদযাপন করা হয়েছে৷ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে মূলত বাংলা ও বৈশাখের কিছু গান বাজানো হয়। তবে আইটেম গান বাঙালি সংস্কৃতির সঙ্গে যায় না।’





Source link